স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠী দ্বীনি শিক্ষার সিলেবাস ও কারিকুলামে বিকৃতি ঘটিয়েছে : ধর্মমন্ত্রী


ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান বলেছেন, একটি স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠী দ্বীনি শিক্ষার সিলেবাস ও কারিকুলামে সুকৌশলে বিকৃতি ঘটিয়েছে।

আজ সকালে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ‘বিশ্ব শান্তির অন্বেষায়Ñপ্রকৃত দ্বীনি শিক্ষা, দাওয়াত ও দ্বীনের সুরক্ষা’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-অর-রশিদ আসকারী, পিএইচপি গ্রুপের চেয়ারম্যান সূফি মিজানুর রহমান, আল আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. আবদেল ফাত্তাহ আবদেল ঘানি মোহাম্মদ ইবরাহীম ও প্রফেসর ড. ইসমাইল মোহাম্মদ আলী আবদেল রহমান।

মতিউর রহমান বলেন, প্রকৃত আলেমের হাত থেকে কৌশলে দ্বীনি শিক্ষাকে ছিনিয়ে নিয়ে আলেম নামধারী একটি ভ্রান্ত ও তাবেদার শ্রেণির হাতে তুলে দেয়া হয়েছে, যারা ইসলামকে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের হাতিয়ার হিসেবে গণ্য করে।

তিনি বলেন, ইসলামিক ফাউন্ডেশন নায়েবে রাসূল তৈরীর লক্ষ্যে প্রকৃত দ্বীনি শিক্ষার কারিকুলাম প্রণয়নের প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। প্রকৃত দ্বীনি শিক্ষা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানো গেলে বাংলাদেশের আলেমগণ শুধুমাত্র বাংলাদেশই নয় বরং সারা বিশ্বের প্রায় ২৫ লক্ষ মসজিদকে কেন্দ্র করে বিশ্বময় ইসলামের সুমহান শিক্ষা ও দাওয়াতী কার্যক্রম সম্প্রসারণে সক্ষম হবে।

মন্ত্রী বলেন, ওহীভিত্তিক শিক্ষায় দুনিয়ার শান্তি ও পরকালীন মুক্তির ব্যবস্থা নিহিত থাকায় রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর যুগ থেকেই দ্বীনি শিক্ষা বিস্তারের কার্যক্রম শুরু হয়। এ শিক্ষার পরশেই মহানবী (সা.)-এর প্রিয় সাহাবীগণ আদর্শবান ও সারা বিশ্বের মানুষের অনুকরণীয় এবং অনুসরণীয় ব্যক্তিত্বের অধিকারী হিসেবে ইতিহাসে অমর হয়ে আছেন।

ইবরাহীম সালেহ আস সাইয়্যেদ সুলাইমান বলেন, আল আযহার বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশে দ্বীনি শিক্ষার বাস্তবায়নে যে কোন ধরনের সহযোগিতা করতে প্রস্তুত রয়েছে।

সভাপতির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবদুল মান্নান বলেন, পৃথিবীতে ইসলামী জ্ঞান চর্চায় যত প্রতিষ্ঠান আছে তন্মধ্যে আল আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ই ছাত্রদের ধর্মান্ধ নয়, ধর্মভীরু করে গড়ে তোলে ও প্রকৃত জ্ঞানচর্চার জন্য উদ্বুদ্ধ করা হয়।

স্বাগত বক্তব্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল বলেন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনে প্রায় ৮০ হাজার আলেম ওলামা রয়েছেন যারা প্রকৃত ইসলামের খেদমত করে যাচ্ছে।

সভাশেষে আল আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. ইবরাহীম সালেহ আস সাইয়্যেদ সুলাইমান বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদে জুমার নামাজের খুতবা পাঠ ও ইমামতি করেন।



(বাসস)  


No comments

Powered by Blogger.