আটক জাপানি নাগরিককে মুক্তি দেবে উ. কোরিয়া



উত্তর কোরিয়ায় আটক জাপানি পর্যটককে মানবিক দিক বিবেচনা করে মুক্তি দেয়া হবে। এ উপদ্বীপের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের বরফ গলার প্রেক্ষাপটে পিয়ংইয়ংয়ের সাথে টোকিও বৈঠকে বসতে চাওয়ার পর এ বন্দিকে ছেড়ে দেয়া হচ্ছে। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এ খবর জানিয়েছে। খবর এএফপি’র।

বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানায়, ‘তোমোউকি সুগিমোতো নামের জাপানি নাগরিক বর্তমানে উত্তর কোরিয়ার আইন বিরোধী অপরাধের তদন্ত করা সংশ্লিষ্ট একটি প্রতিষ্ঠানের হেফাজতে রয়েছে।’ তিনি একজন পর্যটক হিসেবে সম্প্রতি উত্তর কোরিয়া সফরে যান।

সুগিমোতোর ব্যাপারে তেমন কিছু জানা না গেলেও জাপানের সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, তিনি একজন ভিডিওগ্রাফার ছিলেন। বিদেশি একটি ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে তিনি উত্তর কোরিয়া সফর করেন।

জাপানি সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, উত্তর কোরিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় বন্দর নগরী নাম্পোতে একটি সামরিক ঘাঁটির তিনি ভিডিও করে থাকতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কোন অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে সুগিমোতোর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে কিনা তা স্পষ্ট করে জানা যায়নি। এদিকে কখন তাকে মুক্তি দেয়া হবে রোববার রাতের কেসিএনএ’র প্রতিবেদনে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

এতে বলা হয়, ‘উত্তর কোরিয়ার সংশ্লিষ্ট এ প্রতিষ্ঠান মানবিক দিক বিবেচনা করে তাকে ক্ষমা করে দিয়ে বের করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

এদিকে জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এএফপি’র কাছে এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বিদেশি নাগরিকদের গ্রেফতার করে তাদেরকে দাবার গুটি হিসেবে ব্যবহারে উত্তর কোরিয়ার দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে।

No comments

Powered by Blogger.