দেশ আজ স্যাটেলাইট যুগে প্রবেশ করেছে ইঞ্জিনিয়ার্স ডের সমাপনি দিবসের অনুষ্ঠানে- চসিক মেয়র


আইইবি’র ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ইঞ্জিনিয়ার্স ডে ২০১৮ উপলক্ষে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ-চট্টগ্রাম কেন্দ্রের উদ্যোগে দু’দিনব্যাপী কর্মসূচির সমাপনী দিবসে আজ (১২ মে ২০১৮, শনিবার) সন্ধ্যায় কেন্দ্রের প্রাক্তন নির্বাহীদের সংবর্ধনা ও প্রবীণ প্রকৌশলীদের স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।  কেন্দ্রের সভাপতি অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল আলম সভাপতিত্বে ও সম্মানী সম্পাদক প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক এর সঞ্চালনায় আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মাননীয় মেয়র জনাব আ.জ.ম নাছির উদ্দীন ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব আ.জ.ম নাছির উদ্দীন বলেন, প্রকৌশল ও প্রযুক্তির ক্ষেত্রে কার্যকর গবেষণা এবং সাফল্যের পথ বেয়ে বাংলাদেশ আজ স্যাটেলাইট যুগে প্রবেশ করেছে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ট নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে। দেশের মানুষের গড় আয় বৃদ্ধি পেয়েছে। দারিদ্র হ্রাস পেয়েছে। প্রধান অতিথি বলেন, বর্তমান সরকার প্রথমবার ক্ষমতায় আসার পর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া এবং রূপকল্প-২০২১ গ্রহণ করেছিল, তা বাস্তবায়নে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে। রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়নের পাশাপাশি দেশে সামাজিক সুরক্ষা ও কর্মসূচির আওতায় বয়স্ক ভাতা, কাবিখা, বিধবা ভাতা, মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা প্রভৃতি প্রবর্তন করে এবং ভাতার পরিমাণ দিনদিন বাড়িয়ে দিচ্ছে। প্রধান অতিথি বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন, অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রকৌশলী সমাজের অবদান পূর্বের চেয়ে অনেক বেশী দৃশ্যমান। প্রধান অতিথি বর্তমান সরকারের রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নসহ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা ধরে রাখা এবং প্রতিটি উন্নয়ন কর্মকান্ডে প্রকৌশলীদেরকে আরো আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের আহŸান জানান। প্রধান অতিথি বলেন, প্রকৌশল ও তথ্য প্রযুক্তির জ্ঞানের প্রসারে প্রকৌশলীদের আরো বেশী সক্রিয় হওয়ারও আহŸান জানান। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন কেন্দ্রের ভাইস-চেয়ারম্যান (এডমিন. প্রফেশ. এন্ড এসডবিøউ) প্রকৌশলী প্রবীর কুমার দে এবং শেষে ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন ভাইস-চেয়ারম্যান (একা. এন্ড এইচআরডি) প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত প্রকৌশলীদের মধ্যে স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রের প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রকৌশলী এ এ এম জিয়া হুসাইন, প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল্লাহ, প্রকৌশলী এম. শাহজাহান, প্রকৌশলী জ.স.ম বখতিয়ার, প্রকৌশলী এম. আলী আশরাফ, পিইঞ্জ., প্রকৌশলী মোঃ দেলোয়ার হোসেন পিইঞ্জ, প্রকৌশলী মোহাম্মদ হারুন, প্রাক্তন ভাইস-চেয়ারম্যান প্রকৌশলী কাজী রুকুনুদ্দীন আহমেদ, প্রকৌশলী এসএম নাসিরুদ্দিন চৌধুরী পিইঞ্জ, প্রকৌশলী এম. এ. রশীদ, প্রকৌশলী উদয় শেখর দত্ত, প্রাক্তন সম্মানী সম্পাদক প্রকৌশলী লিয়াকত হোসেন বড়ভ‚ঁইয়া প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত কেন্দ্রের প্রাক্তন নির্বাহীদের উত্তরীয় পরিয়ে দেন কেন্দ্রের চেয়ারম্যান, ভাইস-চেয়ারম্যানদ্বয় ও সম্মানী সম্পাদক এবং প্রাক্তন চেয়ারম্যানবৃন্দকে ইঞ্জিনিয়ার্স ডে স্মারক উপহার প্রদান করা হয়। মেজবানে প্রায় সহ¯্রাধিক প্রকৌশলী ও প্রকৌশলী পরিবারের সদস্য অংশগ্রহণ করেন। সংবর্ধনা ও স্মৃতিচারণ শেষে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবান এবং র‌্যাফেল ড্র’র আয়োজন করা হয়।


No comments

Powered by Blogger.