কুয়েটে দুই দিনব্যাপী আবহাওয়ার পূর্বাভাষ সম্পর্কিত সম্মেলন শুরু


খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) দুই দিনব্যাপী “কনফারেন্স অন ওয়েদার ফোরকাস্টিং এন্ড অ্যাডভান্স ইন ফিজিক্স” (সিডবিøউএফএপি) এর উদ্বেধনী অনুষ্ঠানে বক্তাগণ বলেন, “প্রকৃতিকে নিয়ন্ত্রণ করা আপাতদৃষ্টিতে সম্ভব নয়, তবে এ সম্পর্কিত জ্ঞান এবং পূর্বাভাষ মৃত্যু ও ক্ষয় ক্ষতি অনেক কমিয়ে দিতে সক্ষম। পদার্থ বিজ্ঞানের অগ্রযাত্রা এবং এ সংক্রান্ত গবেষনা আমাদেরকে সতর্ক হতে সহায়তা করছে এবং এমন একদিনের আশা আমরা করি যেদিন ভুমিকম্পসহ বিভিন্ন দূর্যোগ আঘাত হানার সঠিক সময় আমরা জানতে সক্ষম হবো”। 

তাঁরা আরো বলেন, “পরিবর্তিত বৈশ্বিক আবহাওয়ার বর্তমান প্রেক্ষাপটে সম্মেলনটি যথেষ্ট সময় উপযোগী। বর্তমানে বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূর্যোগ হানা দিলেও ক্ষয় ক্ষতির পরিমাণ পূর্বের চেয়ে অনেক কম। এর প্রধান কারন দূর্যোগ সম্পর্কে পূর্বেই আমরা সতর্ক হতে পারছি। ওয়েদার ফোরকাস্টিং এর মাধ্যমেই এটি সম্ভব হয়েছে”। 

১১ মে শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের আয়োজনে এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সহযোগিতায় সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার সেন্টারে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ একাডেমি অফ সায়েন্স এর সম্পাদক প্রফেসর ড. মেজবাউদ্দীন আহমেদ। 

অনুষ্ঠানে প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এনপিআই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. ডি. এ. কাদির। 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুব আলম, ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তৃতা করেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. শিবেন্দ্র শেখর শিকদার এবং সভাপতিত্ব করেন সম্মেলনের আহŸায়ক প্রফেসর ড. আব্দুল্লাহ ইলিয়াস আক্তার। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে প্লিনারী সেশন পরিচালনা করেন ভারতের ইন্ডিয়া মেটিওরোলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট (আইএমডি) এর ড. এস. কে. রায় ভৌমিক, জাপানের জাপান মেটিওরোলজিক্যাল এজেন্সি’র মেটিওরোলজিক্যাল রিসার্স ইন্সটিটিউট এর ড. নাদাও কোহনো এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের গøাস এন্ড সিরামিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ড. এ. কে. এম. আব্দুল হাকিম। 

দুই দিনব্যাপী সম্মেলনে ১টি প্লিনারী ও ১টি পোস্টার সেশনসহ মোট ১৪টি সেশনে ১৫৩ টি পেপার উপস্থাপন করা হবে। সম্মেলনে বাংলাদেশসহ জাপান, ভারত ও নেপালের  বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রতিষ্ঠানের আড়াই শতাধিক গবেষক, শিক্ষক, সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রের শিক্ষার্থীগণসহ অন্যান্যরা অংশগ্রহন বরছেন।


No comments

Powered by Blogger.