মেসির হ্যাট্টিকের রাতে রেকর্ড স্পর্শ করলো বার্সেলোনা


লিওনেল মেসির হ্যাট্টিকে স্প্যানিশ ফুটবল লিগে বার্সেলোনা ৩-১ গোলে হারিয়েছে লেগানেসকে। এই জয়ে লা-লিগায় টানা ৩৮ ম্যাচ অপরাজিত থাকার রেকর্ড স্পর্শ করলো বার্সা। ১৯৭৮-৭৯ ও ১৯৭৯-৮০ মৌসুমে লা-লিগায় টানা ৩৮টি ম্যাচ অপরাজিত থাকার রেকর্ড গড়েছিলো রিয়াল সোসিয়াদাদ। এবার সোসিয়াদাদের রেকর্ডে ভাগ বসাল বার্সেলোনা। গত বছরের এপ্রিল থেকে এখন পর্যন্ত লা-লিগায় অপরাজিত আছে বার্সা। অবশ্য ৩৮ অপরাজিত থাকার ম্যাচে সবচেয়ে বেশি জয়ের স্বাদ নিয়েছে বার্সেলোনা। ৩১ জয়ের সাথে ৭টি ড্র করে বার্সা। অপরদিকে, ৩৮ বছর আগে গড়া রেকর্ডে ২২ জয় ও ১৬ ম্যাচ ড্র করেছিলো সোসিয়াদাদ। 

লা-লিগায় আগের ম্যাচেই সেভিয়ার সাথে ২-২ গোলে ড্র করেছিলো বার্সেলোনা। তাই এবার আবারো জয়ের ধারায় ফিরতে লিগে নিজেদের ৩১তম ম্যাচ খেলতে নামে বার্সা। ফেভারিটের তকমা সাথে থাকার পাশাপাশি নিজেদের মাঠে খেলার সুবিধা ছিলো বার্সেলোনার। 

তবে প্রথম গোলের জন্য ম্যাচের ২৭ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে বার্সেলোনাকে। পাশাপাশি প্রথম গোলের জন্য দলের সেরা তারকা মেসির দিকে তাকিয়ে থাকতে হয় দলকে। ফ্রি-কিক থেকে বাকানো শটে লেগানেসের গোলরক্ষককে বোকা বানান মেসি। ফলে ১-০ গোলে লিড নেয় বার্সা। এই ফ্রি-কিকে গোল করে ব্রাজিলের রোনালদিনহোকে স্পর্শ করেছেন মেসি। এবারের মৌসুমে লা-লিগায় ফ্রি-কিক থেকে ষষ্ঠ গোল করলেন তিনি। ২০০৬-০৭ মৌসুমের পর লা-লিগায় এক মৌসুমে ৬টি করেছিলেন শুধুমাত্র রোনালদিনহো। 

প্রথম গোল একক প্রচেষ্টায় করলেও, দ্বিতীয় গোল মেসি করেছেন ফিলিপ কুটিনহোর সহায়তায়। ফলে ৩২ মিনিটেই ২-০ গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। ডাবল লিড নিয়েও নিজেদের সেরাটা অব্যাহত রেখেছিলো বার্সা। 

তবে প্রথমার্ধে দু’গোল আদায় করতে পারলেও দ্বিতীয় অর্ধে শূন্য হাতেই ফেরার অবস্থায় ছিলো বার্সেলোনার। কিন্তু সেটি হতে দেননি মেসি। আবারো বার্সার গোলের মালিক বনে যান তিনি। ওসমানে ডেম্বেলের যোগান দেয়া বল বাঁ-পায়ের শটে লেগানেসের জালে পাঠান মেসি। সেই সাথে এ ম্যাচে নিজের হ্যাট্টিক পূর্ণ করেন মেসি। 

দেশ ও ক্লাব মিলিয়ে নিজের ফুটবল ক্যারিয়ারে ৪৫তম হ্যাট্টিক করলেন মেসি। এরমধ্যে ৪০টি ফুটবলে বার্সেলোনার জার্সিতে। বার্সার হয়ে ৪০তম হ্যাট্টিকের দিন লিগে ২৯ গোলের মালিক হন মেসি। এতে মোহাম্মদ সালেহকে স্পর্শ করলেন তিনি। ইংলিশ লিগে সর্বোচ্চ ২৯ গোল করেছেন সালেহ। তাই ইউরোপিয়ান গোল্ডেন জুতা জয়ের দৌড়ে সমানতালে আছেন মেসি ও সালেহ। 



No comments

Powered by Blogger.