আমি এখনো বুড়ো হয়ে যাইনি : গেইল


ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) টি-২০ ক্রিকেটের এগারতম আসরে প্রথম সেঞ্চুরি করে দেখালেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলোয়াড় ক্রিস গেইল। তার ৬৩ বলে অপরাজিত ১০৪ রানে বাংলাদেশের সাকিব আল হাসানের দল সানরাইজার্স হায়দারাবাদকে ১৫ রানে হারিয়েছে পাঞ্জাব। অথচ গেলো জানুয়ারিতে আইপিএলের নিলামের প্রথম দু’দিন গেইলকে কেউই দলই ভেড়ায়নি। নিলামের তৃতীয় দিন ৩ লাখ ১৪ হাজার ডলারে গেইলকে দলে ভেড়ায় পাঞ্জাব। সেঞ্চুরি করে নিজের জাত চেনালেন গেইল। তবে তিনি মনে করেন, তার প্রমাণের কিছু নেই, ‘অনেকেই ভেবেছিল, আমি বোধ হয় বুড়ো হয়ে গিয়েছি। এই ইনিংসের পর আমার কিছু প্রমাণ করার নেই।’

বিভিন্ন দেশের টি-২০ ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক লিগের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানের খেতাব রয়েছে গেইলের দখলে। সংক্ষিপ্ত এ ভার্সনের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ৩৮ বছর বয়সী গেইল। কিন্তু আইপিএলের এগারতম নিলামে তাকে দলে নেয়ার ব্যাপারে আগ্রহ ছিলো না কোন দলেরই। তবে শেষ পর্যন্ত বেইজ প্রাইজে তাকে দলে ভেড়ায় পাঞ্জাব। কিন্তু আসরে দলের প্রথম দুই ম্যাচে সুযোগ না পেয়ে অস্বস্তিতে ছিলেন এ রান মেশিন।

তবে গেলো রোববার পাঞ্জাবের তৃতীয় ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে সুযোগ পেয়েই নিজেকে চিনিয়েছেন গেইল। ৭টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৩৩ বলে ৬৩ রান করেন তিনি। এতেও যেনো ক্ষোভ কমেনি গেইলের। তাই হায়দারাবাদের বিপক্ষে বিধ্বংসী রূপ নেন গেইল। ১১টি ছক্কা ও ১টি চারে ৬৩ বলে ১০৪ রানের ঝকঝকে ইনিংস উপহার দেন গেইল।
তাই ম্যাচে শেষে উচ্ছ্বসিত গেইল বলেন, ‘যে ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়েই খেলি না কেনো, মাঠে নামলে সেরাটা দেওয়ার জন্য বদ্ধপরিকর থাকি।’

কিছুদিন আগে পাঞ্জাবের উপদেষ্টা ও ভারতের সাবেক ওপেনার বিরেন্দার শেবাগ একটি সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘ক্রিস যদি দু’টো ম্যাচও জিতিয়ে দিতে পারে আমাদের, তাহলে ওদের টাকা উসুল হয়ে যাবে। এ নিয়ে এবার আমাকে শেবাগের সঙ্গে কথা বলতে হবে!’

ইতোমধ্যে গেইলের ঝড়ের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে টুইট করেছেন শেবাগ। তিনি লিখেছেন, ‘ক্রিসকে দলে নিয়ে আমি আইপিএলকে বাঁচিয়ে দিয়েছি ।’

শেবাগের এই টুইট চোখ এড়ায়নি গেইলের। সাথে সাথে ওই টুইটের জবাব দিয়েছেন টি-২০ ‘ইউনিভার্স বস’ গেইল। তিনি বলেন, ‘ইয়েস।’ 




(বাসস)


 

No comments

Powered by Blogger.