নেপালে বিমান দূর্ঘটনায় মারা গেছেন রুয়েট সিএসই ০৬ ব্যাচের রকিবুল হাসান


নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান দূর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) এর কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ (সিএসই) ০৬ ব্যাচের রকিবুল হাসান। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজীউন….)তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি সফট্ওয়ার কোম্পানিতে চাকরি করতেন।

তিনি রুয়েটের শিক্ষিকা ইমরানা কবির হাসির স্বামী।

তারা স্বামী-স্ত্রী ১৫ দিনের ছুটিতে বেড়াতে যাচ্ছিলেন নেপালে। বিমান দূর্ঘটনায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রকিবুল। আর ইমরানা কবির হাসিকে বর্তমানে নেপালের কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে  ভর্তি করা হয়েছে।


“ইঞ্জিনিয়ার্স ভয়েস” এর পক্ষ থেকে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি জানাচ্ছি গভীর সমবেদনা….

সেই সাথে দূর্ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত তার স্ত্রী ইমরানা কবির হাসির দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।


রুয়েটের কনভোকেশনে রকিবুল হাসান ও ইমরানা কবির হাসি

প্রসঙ্গত, পাইলট ও ক্রুসহ ৭১ আরোহী নিয়ে নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস বাংলা এয়ারলাইনের বিমান দুপুর ২টা ২০মিনিটে বিধ্বস্ত হয়। এতে ৫০ জন নিহত ও ১৭ জন আহত হয়। বিমানের অধিকাংশ যাত্রী ছিল বাংলাদেশ ও নেপালের নাগরিক। চীন ও মালদ্বীপের একজন করে যাত্রী ছিল। নেপালের ৫টি হাসপাতালে আহতদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।


Powered by Blogger.