বাংলাদেশ-ভিয়েতনাম পারস্পরিক সহযোগিতা উভয় দেশের সমৃদ্ধি ত্বরান্বিত করবে : স্পিকার


সফররত ভিয়েতনামের প্রেসিডেন্ট ত্রান দাই কোয়াং-এর নেতৃত্বে ছয়-সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল সোমবার জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সাথে তাঁর কার্যালয়ে বৈঠক করেন। বৈঠককালে তাঁরা দ্বি-পাক্ষিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করেন। এ সময় তাঁরা দুই দেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম, ইতিহাস, ঐতিহ্য, শিল্প-সংস্কৃতি ও ব্যবসা-বাণিজ্য, নারীর ক্ষমতায়ন ও জেন্ডার সমতাকরণের জন্য নিজ নিজ দেশে গৃহীত কার্যক্রম এবং সংসদীয় রীতি-পদ্ধতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

ভিয়েতনামকে বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র হিসেবে উল্লেখ করে স্পিকার ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের পর ভিয়েতনাম কর্তৃক সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়ার কথা স্মরণ করেন। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ও সামাজিক সকল ক্ষেত্রে উন্নয়নের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। বাংলাদেশ ইতোমধ্যে নি¤œ-মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে এবং ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম-আয়ের দেশে পরিণত হওয়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে বর্তমান সরকার বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে প্রায় ১০০টি অর্থনৈতিক জোন এবং ২৮টি আইটি পার্ক প্রতিষ্ঠার কাজ হাতে নিয়েছে- যেখানে ভিয়েতনামের বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে। তিনি এ সকল ক্ষেত্রে ভিয়েতনামকে বিনিয়োগের আহবান জানান।

স্পিকার বলেন, ‘বাংলাদেশে প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষা, সামাজিক ও স্বাস্থ্য সচেতনতা সৃষ্টি, মাতৃ ও শিশু মৃত্যুহার হ্রাস এবং বাল্যবিবাহ রোধ করে ইতোমধ্যে সহ¯্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করেছে। সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় সরকার বয়স্ক ও বিধবা ভাতা প্রদানের মাধ্যমে সমাজের দারিদ্র্যের হার ২৩ শতাংশে নামিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছে।’

বাংলাদেশ ও ভিয়েতনামের মধ্যে মৈত্রী গ্রুপ গঠন এবং সংসদীয় প্রতিনিধিদলের সফর ও মতবিনিময়ের মাধ্যমে দু’দেশের পার্লামেন্ট উপকৃত হতে পারে উল্লেখ করে দু’দেশের সংসদ সদস্যদের সফর বিদ্যমান বন্ধুত্বকে আরো জোরদার করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

ভিয়েতনামের প্রেসিডেন্ট ত্রান দাই কোয়াং বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রশংসা করেন এবং বাংলাদেশের উন্নয়নে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো. আবদুর রব হাওলাদার এবং ফাম বিন মিন, দাও ভিয়েত ট্র্যাং, নগুয়েন ডেক ভিনহ, নগুয়েন মিনহ হুয়েন, ট্রান ভেন খাউ উপস্থিত ছিলেন।

পরে ভিয়েতনামের প্রেসিডেন্ট জাতীয় সংসদ ভবন পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি সংসদ ভবনের স্থাপত্যশৈলীর প্রশংসা করেন। তিনি জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজা, অধিবেশন কক্ষ এবং বিভিন্ন লবি পরিদর্শন করেন। 


 (বাসস)


No comments

Powered by Blogger.