নেপালে বিমান দূর্ঘটনায় নিহত রুয়েট শিক্ষার্থী রকিবুল হাসানের জানাজা নামাজ অদ্য বিকাল ৪:০০ ঘটিকায় আর্মি স্টেডিয়াম, ঢাকা’তে অনুষ্ঠিত হবে


নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান দূর্ঘটনায় মারা যান রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) এর কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ (সিএসই) ০৬ ব্যাচের রকিবুল হাসান। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজীউন….)
 
মরহুমের জানাজা নামাজ আজ বিকাল ৪:০০ ঘটিকায় আর্মি স্টেডিয়াম, ঢাকা’তে অনুষ্ঠিত হবে। জানাজা নামাজ শেষে বিকাল ৫:০০ ঘটিকায় লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এরপর রাকিবুল হাসান’কে আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করা হবে।
 
সবাইকে উক্ত জানাজা নামাজে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করেছেন রুয়েটের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সংগঠন, রাজশাহী ইঞ্জিনিয়ারিং ওল্ড স্টুডেন্টস এ্যাসাসিয়েশান (রিওসা) এর সভাপতি মোঃ আকরামুজ্জামান।
উল্লেখ্য, নিহত রাকিবুল হাসান রুয়েটের শিক্ষিকা ইমরানা কবির হাসির স্বামী।
তারা স্বামী-স্ত্রী ১৫ দিনের ছুটিতে বেড়াতে যাচ্ছিলেন নেপালে। বিমান দূর্ঘটনায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রকিবুল। আর ইমরানা কবির হাসিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বর্তমানে সিঙ্গাপুরে ভর্তি করা হয়েছে।
 
অদ্য সোমবার বেলা ৩টায় ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে বিমানটি। এরপর কফিন নিয়ে যাওয়া হবে আর্মি স্টেডিয়ামে। সেখানে বিকাল ৪টায় হবে জানাজা।

মরদেহ হস্তান্তরের জন্য স্বজনদের ওই সময়ই উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও আর্মি স্টেডিয়ামে উপস্থিত থাকবেন বলে জানান আইএসপিআর পরিচালক।

ইউএস-বাংলার ফ্লাইট বিএস২১১ গত ১২ মার্চ কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হলে ৭১ আরোহীর মধ্যে ৪৯ জনের মৃত্যু হয়। তাদের মধ্যে চারজন ক্রুসহ ২৬ জন বাংলাদেশি।

নিহতদের মধ্যে ২৩ জনের মরদেহ শনাক্ত করার পর নেপালি কর্তৃপক্ষ কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশ দূতাবাস কর্তৃপক্ষের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করে। তাদের কফিন সোমবার সকালে নিয়ে যাওয়া হয় দূতাবাস প্রাঙ্গণে।

নেপালে বসবাসরত বাংলাদেশি, বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং ইউএস-বাংলার উপস্থিত কর্মকর্তারা সেখানে জানাজায় অংশ নেন। পরে মরদেহ দেশে আনার জন্য পাঠানো হয় ত্রিভুবন বিমানবন্দরে।

এই ২৩ জনের মধ্যে পাইলট আবিদ সুলতান, কো-পাইলট পৃথুলা রশীদ এবং কেবিন ক্রু খাজা হোসেন মো. শফি ও শারমিন আক্তার নাবিলা রয়েছেন।

আর যাত্রীদের মধ্যে ফয়সাল আহমেদ, বিলকিস আরা, বেগম হুরুন নাহার বিলকিস বানু, আখতারা বেগম, নাজিয়া আফরিন চৌধুরী, রকিবুল হাসান, হাসান ইমাম, আঁখি মনি, মিনহাজ বিন নাসির, ফারুক হোসেন প্রিয়ক, তার মেয়ে প্রিয়ন্ময়ী তামারা, মতিউর রহমান, এস এম মাহমুদুর রহমান, তাহিরা তানভিন শশী রেজা, বেগম উম্মে সালমা, মো. নুরুজ্জামান, রফিক জামান, তার স্ত্রী সানজিদা হক বিপাশা, তাদের ছেলে অনিরুদ্ধ জামানের মরদেহ আসছে দুপুরে।



No comments

Powered by Blogger.