কুয়েটে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুষ্পমাল্য অর্পণ


মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং একুশের প্রথম প্রহরে বিশ্ববিদ্যালয়ের নব-নির্মিত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়েছে। ২০ ফেব্র“য়ারি রাত ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার চত্ত¡রে আলোচনা সভা ও দিবসের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (ছাত্র কল্যাণ) প্রফেসর ড. সোবহান মিয়া এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর। 

একুশের প্রথম প্রহর রাত ১২ঃ০১ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে প্রথম পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর। এরপর পর্যায়ক্রমে পরিচালক (ছাত্র-কল্যাণ), শিক্ষক সমিতি, বিভিন্ন হলের প্রভোস্ট ও ছাত্র-ছাত্রীগণ, কুয়েট অফিসার্স এসোসিয়েশন, কুয়েট ছাত্রলীগ, কুয়েট বঙ্গবন্ধু কর্মচারী পরিষদ, কুয়েট তৃতীয় শ্রেণী কর্মচারী সমিতি, কুয়েট চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী সমিতি, কুয়েট থিয়েটার, অচীন পাখি, স্বরে-অ, কুয়েট মাষ্টাররোল কর্মচারী সমিতিসহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

এছাড়া, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের অন্যান্য কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে পতাকা উত্তোলন (জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন), সকাল ৯টায় স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার সেন্টারে শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, আসর বাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে শহীদদের রুহের মাগফেরাত ও দেশের শান্তি, কল্যাণ কামনা করে দোয়া মাহফিল।

উল্লেখ্য, এ বছর বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্মিত নতুন শহীদ মিনারে প্রথম ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। ১ কোটি টাকা ব্যয়ে ২২২২ বর্গ মিটার এরিয়ার উপর ১১.৯৮ মিটার উচ্চতা বিশিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ঢাকার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের অনুরূপ করে নির্মিত বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারটিতে ৫টি লেভেল এবং মহান একুশে ফেব্রæয়ারি তারিখকে সম্মান জানিয়ে ২১ টি ধাপ রয়েছে, পঞ্চম লেভেলে রয়েছে শহীদ মিনারের মূল বেদী। শহীদ মিনারের বিভিন্ন লেভেলে গাছ ও সবুজ ঘাস রাখা হয়েছে যা বাংলাদেশকে প্রকাশ করে। এছাড়া শহীদ মিনারে লাল সূর্য, পিছনে এর সাথে সামঞ্জস্য রেখে তৈরী করা হয়েছে নয়নাভিরাম লেক। 

No comments

Powered by Blogger.