দেশকে উন্নত দেশে রূপান্তরিত করতে বঙ্গবন্ধু আদর্শ ধারণকারী প্রকৌশলীদের ভূমিকা সর্বাধিক - মেয়র

বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ, চট্টগ্রাম কেন্দ্র আয়োজিত আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের নবনির্বাচিত নির্বাহী, কাউন্সিল সদস্য, ইআরসি’র নির্বাহী ও জেলা আইনজীবি সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতির সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মাননীয় মেয়র জনাব আ.জ.ম নাছির উদ্দীন।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে এই দেশের সমৃদ্ধি ও উন্নয়নে প্রকৌশলী সমাজকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। দেশের উন্নয়ন কর্মকান্ডের অধিকাংশ কাজ বাস্তবায়িত হয় প্রকৌশলীদের তত্ত্বাবধানে। প্রকৌশলীরা যথাযথ দায়িত্ব পালন করলে বাংলাদেশ অচিরেই উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত হবে। 

বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের উদ্যোগে ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ সোমবার সন্ধ্যা ৬:৩০টায়  ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি), চট্টগ্রাম কেন্দ্রের মিলনায়তনে আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্র ও ইঞ্জিনিয়ার্স রিক্রিয়েশন সেন্টার (ইআরসি), চট্টগ্রাম কেন্দ্রের নবনির্বাচিত নির্বাহী ও কাউন্সিল সদস্যবৃন্দ এবং চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবি সমিতির নবনির্বাচিত  সভাপতি এডভোকেট মোঃ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরীর  সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র জনাব আ.জ.ম নাছির উদ্দীন উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

 বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের সভাপতি প্রকৌশলী মোহাম্মদ হারুন এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী সাদেক মোহাম্মদ চৌধুরী’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা সভায় সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল আলম, নবনির্বাচিত ভাইস-চেয়ারম্যান (একা. এন্ড এইচআরডি) প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন, নবনির্বাচিত ভাইস-চেয়ারম্যান (এডমিন. প্রফেশ. এন্ড এসডব্লিউ) প্রকৌশলী প্রবীর কুমার দে ও নবনির্বাচিত সম্মানী সম্পাদক প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক, নবনির্বাচিত কাউন্সিল সদস্যবৃন্দ, ইঞ্জিনিয়ার্স রিক্রিয়েশন সেন্টারের নবনির্বাচিত নির্বাহী ও নির্বাহী সদস্যবৃন্দ এবং চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবি সমিতির নবনির্বাচিত  সভাপতি এডভোকেট মোঃ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী। 

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি   জনাব আ.জ.ম নাছির উদ্দীন আরো বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ ইতিমধ্যে জাতিসংঘ কর্তৃক ঘোষিত মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল (এমডিজি)’র প্রতিটি শর্ত ও সূচক পূর্ণ করে এমডিজি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। এই সক্ষমতা অর্জনে অন্যান্য পেশাজীবি সংগঠনের ভূমিকার পাশাপাশি প্রকৌশলীদের ভ‚মিকা ছিল অত্যন্ত প্রশংসনীয়। 

বর্তমানে এসডিজি অর্জনেও প্রকৌশলীদের ভ‚মিকা আরো দৃশ্যমান হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। প্রধান অতিথি বলেন, বর্তমান সরকারের রূপকল্প-২০২১ এবং ২০৪১ বাস্তবায়ন ও দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরিত করার লক্ষে প্রকৌশলী সমাজকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান। 

তিনি আরো বলেন, যারা এদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করেনা তারা কখনো দেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি চায়নি। 

প্রধান অতিথি বর্তমান সরকারের কর্মসূচি বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে কাঙ্খিত লক্ষে  তথা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদের সদস্যদের বেশী অবদান রাখতে হবে বলে উল্লেখ করেন। 

সভায় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল আলম, নবনির্বাচিত ভাইস-চেয়ারম্যান (একা. এন্ড এইচআরডি) প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন, নবনির্বাচিত ভাইস-চেয়ারম্যান (এডমিন. প্রফেশ. এন্ড এসডবিøউ) প্রকৌশলী প্রবীর কুমার দে ও নবনির্বাচিত সম্মানী সম্পাদক প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক, আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের প্রাক্তন চেয়ারম্যান ও বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল্লাহ, আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রকৌশলী এম. শাহজাহান, বিশিষ্ট নগর পরিকল্পনাবিদ ও আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রকৌশলী এম. আলী আশরাফ, পিইঞ্জ., চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবি সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি  এডভোকেট মোঃ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী। 

সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল আলম আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রকে প্রকৌশলীদের দ্বিতীয় নিবাস হিসেবে গড়ে তোলা এবং প্রকৌশলী সমাজের পেশাগত উন্নয়ন ও দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষে আগামীতে কাজ করার জন্য সকল প্রকৌশলী সদস্যদের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন।

এছাড়া তিনি সরকারের উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে প্রকৌশলীদের নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনেরও আহবান জানান। 

এডভোকেট ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী বলেন, প্রকৌশলীরাই মানসম্পন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনার মাধ্যমে একটি দেশের দৃশ্যমান উন্নয়ন ঘটাতে এবং দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে পারেন। 

নবনির্বাচিত আইনজীবি সমিতির সভাপতি দেশের মেধাবী সন্তান হিসেবে প্রকৌশলী সমাজকে নতুন প্রজন্মের জন্য একটি সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে এগিয়ে আসার আহবান জানান। 

তিনি প্রতিটি পেশার মানুষকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ কেের স্ব স্ব অবস্থান থেকে দেশের উন্নতি ও সমৃদ্ধির লক্ষে কাজ করার আহবান জানান। 

পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমে সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শুরুর পর সংবর্ধিত অতিথিদের বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।


No comments

Powered by Blogger.