যবিপ্রবি’র সমাবর্তন ৭ ফেব্রুয়ারি


যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) ‘৩য় সমাবর্তন’ আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি বুধবার বেলা আড়াইটায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের চ্যান্সেলর মো: আবদুল হামিদ।

সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জার্মানির নাগরিক, ১৯৮৮ সালে রসায়ন শাস্ত্রে নোবেল বিজয়ী প্রফেসর ড. রবার্ট হিউবার। বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে এই প্রথম একজন অবাঙালি নোবেল বিজয়ী সমাবর্তন বক্তা হিসেবে আসছেন। এমন বিশিষ্ট বিজ্ঞানীর আগমনে সারা দেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি বৃদ্ধি এবং একজন নোবেল বিজয়ীর সান্নিধ্যে পাওয়ার মাধ্যমে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাজুয়েটগণ আগামীর বাংলাদেশ গঠনে অনুপ্রাণিত হবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

‘৩য় সমাবর্তন’ সফলভাবে বাস্তবায়নের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। ইতিমধ্যে ১৯টি কমিটি ও উপ-কমিটি তাদের ওপর অর্পিত পালনে কাজ শুরু করেছে। শিক্ষার্থীদের জন্য মেডেল, ক্রেস্ট এবং অন্যান্য উপহার সামগ্রী তৈরির কাজও শুরু হয়েছে। চলছে ক্যাম্পাসের সৌন্দর্য বর্ধনের কাজও।

যে সকল শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২য় সমাবর্তন পরবর্তী সময়ে স্নাতক/স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেছেন, তারা ৩য় সমাবর্তনের রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। এ ছাড়া রিটেক বা অন্যান্য জটিলতার কারণে যারা ‘২য় সমাবর্তন’ পাননি তারাও ‘৩য় সমাবর্তন’ তে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

‘৩য় সমাবর্তন’ তে নিবন্ধনের শেষ সময় গত ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ছিল। তবে ফল প্রকাশ বিলম্বসহ নানা কারণে ৩য় সমাবর্তনে নিবন্ধনের মেয়াদ আগামী ২৫ জানুয়ারি, ২০১৮ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। সমাবর্তনের মাধ্যমে সনদ গ্রহণ একজন শিক্ষার্থীর জন্য কাংখিত বিষয়। এই বিষয়টি মাথায় রেখে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সমাবর্তনে রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ বৃদ্ধি করেছে।

সমাবর্তনে অংশগ্রহণেচ্ছু গ্রাজুয়েটগণ সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে আবেদনপত্র (রেজিস্ট্রেশন ফরম) সংগ্রহ করে অথবা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.just.edu.bd) থেকে ফরম ডাউনলোড করে আবেদন করতে পারবেন। একই সঙ্গে সমাবর্তনে অংশগ্রহণের সকল নিয়ম-কানুন বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে।

২০১৫ সালের ২৬ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘২য় সমাবর্তন’ অনুষ্ঠিত হয়। ওই সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করেন মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ। এর আগে ২০১৩ সালের ১০ মে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে রাষ্ট্রপতির পক্ষে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

No comments

Powered by Blogger.