চুয়েটের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক কোর্সের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত


চুয়েট ভয়েসঃ  


চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযু্িক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) -এর মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেছেন, বাংলাদেশ একটি সম্ভাবনাময় দেশ। এদেশের জনসংখ্যার বিশাল একটি অংশ তরুণ। বর্তমান তরুণ প্রজন্ম সৃষ্টিশীল ও দারুণ সম্ভাবনাময়। এখন যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে নিজেদেরকে আত্মপ্রত্যয়ী হতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে খ্যাতিসম্পন্ন ও দেশবরণ্য প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের তালিকায় নিজেদের অবস্থান সৃষ্টি করতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য নেতৃত্বে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশের অভিযাত্রা এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ গঠনের লক্ষ্যে যে অগ্রযাত্রা এগিয়ে চলছে সেখানে বর্তমান মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীরা আগামী দিনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও নেতৃত্বের ভূমিকায় থাকবে। তিনি ২৫ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার), ২০১৮ খ্রি. চুয়েট কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়ামে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক লেভেল-১ কোর্সের ছাত্র-ছাত্রীদের ‘ওরিয়েন্টেশন’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।


ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মশিউল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী। অনুষ্ঠানে স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মোঃ সাইফুল ইসলাম  ÔAcademic Ordinance and Rules & Examination Ordinance and RulesÕ  বিষয়ে, প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. রণজিৎ কুমার সূত্রধর ÔStudent Discipline Rules GeneralÕ  বিষয়ে, পুরকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মোঃ আব্দুর রহমান ভূইয়া ÔResearch Collaboration, Industry and University InteractionÕ বিষয়ে, তড়িৎ ও কম্পিউটার কৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. কৌশিক দেব ÔCampus Living Rules and General RulesÕ বিষয়ে, যন্ত্রকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. সজল চন্দ্র বনিক ÔExtra Curricular ActivitiesÕ বিষয়ে এবং শহীদ মোহাম্মদ শাহ হলের প্রভোস্ট ড. মোহাম্মদ কামরুল হাছান ÔHall Accommodation and Hall Discipline RulesÕ বিষয়ের উপর বক্তব্য রাখেন।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান অগ্রগতি ও পরিচিতিমূলক ÔBrief Presentation on CUETÕ শীর্ষক একটি ভিডিওচিত্র উপস্থাপন করেন সহকারী রেজিস্ট্রার (সমন্বয়) জনাব মোহাম্মদ ফজলুর রহমান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন মানবিকের প্রভাষক জনাবা নাহিদা সুলতানা চৈতী।

নবাগত ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে চুয়েট ভিসি আরো বলেন, ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা হচ্ছে একটি ব্যতিক্রমধর্মী এবং সম্পূর্ণ ব্যবহারিক ও কর্মমুখী শিক্ষা। এখানে ছাত্র-শিক্ষকদের সম্পর্ক অত্যন্ত নিবিড়। শুধুমাত্র শ্রেণী কক্ষের পাঠদান করা বিষয়ের ওপর নিজেদের আবদ্ধ করে রাখলে চলবে না। তিনি বলেন, আজ তোমরা যারা নতুন প্রাণশক্তি ও অমিত সম্ভাবনা নিয়ে এখানে এসেছ। তোমাদের সাদরে বরণ করে নিয়ে তোমাদেরকেও ঐতিহ্য রক্ষার সুমহান দায়িত্বে অংশীদার করছি। আশা করি এ প্রতিষ্ঠানের গৌরব বৃদ্ধিতে তোমরাও প্রাণপণ চেষ্টা করবে। এ প্রতিষ্ঠানে তোমাদের শিক্ষাজীবন সফল-সার্থক ও গৌরবময় হোক। এখানকার শিক্ষা নিয়ে তোমরা দেশ-জাতি ও বিশ্বমানবতার কল্যাণে নিয়োজিত হও। যৌবনের আলোয় আলোকিত হোক তোমাদের ভুবন।  


No comments

Powered by Blogger.